Home > খেলাধুলা > বেশি পন্ডিতি দেখাতে গিয়েই সর্বনাশ হয়েছে ভারতের: রবিন উথাপ্পা

বেশি পন্ডিতি দেখাতে গিয়েই সর্বনাশ হয়েছে ভারতের: রবিন উথাপ্পা

চলমান এশিয়া কাপে ভারত-পাকিস্তান ফাইনাল দেখার স্বপ্নে বিভোর ছিলেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। কিন্তু পাকিস্তানের বিপক্ষে আফগানিস্তান হেরে যাওয়ায় ভারতের ফাইনাল খেলার শেষ সম্ভাবনাটুকুও শেষ হয়ে গেছে। শ্রীলঙ্কাকে সঙ্গে নিয়ে ফাইনালে উঠে গেছে পাকিস্তান। প্রিয় দলের এমন বিদায় কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না ভারত সমর্থকরা। শক্তিশালী দল, তবু কেন ফাইনালে উঠতে পারল না ভারত তা নিয়েও চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ।

এদিকে গ্রুপ পর্বে দুর্দান্ত ক্রিকেট খেলা ভারত সুপার ফোরে হুট করে খেই হারিয়ে ফেলে। হেরেছে টানা দুই ম্যাচ। এর পেছনে অনেকেই কারণ হিসেবে বলছেন অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজার ইনজুরি। এশিয়া কাপ তো বটেই, ইনজুরিতে পড়ে বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে গেছেন এই অলরাউন্ডার। জাদেজা ইনজুরিতে পড়ায় একাদশে পরিবর্তন আনতে হয়েছে ভারতীয় অধিনায়ক রোহিত শর্মার। জাদেজার বদলে ফিনিশার হিসেবে খেলিয়েছেন অলরাউন্ডার দীপক হুদাকে। যদিও হুদা উপরের দিকে ব্যাট করে থাকেন, কিন্তু জাদেজার মতো সাত নম্বরে খেলানো হয়েছে এই অলরাউন্ডারকে।

এই দুই ম্যাচেই নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি দীপক। সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১৪ বলে ১৬ রান করে নাসিম শাহের বলে ক্যাচ দেন মোহাম্মদ নেওয়াজের হাতে। আর পরের ম্যাচে তো শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলতে পেরেছেন মাত্র ৪ বল। মাদুশাঙ্কার বলে আউট হওয়ার আগে করেন ৩ রান। ফাইনালের আগে বিদায় নিশ্চিত হওয়ার পর ভারতের টিম ম্যানেজমেন্টের সমালোচনায় মুখর ভারতের সাবেক ক্রিকেটাররা। এই তালিকায় আছেন দলের বাহিরে থাকা খেলোয়াড়রাও।

ভারতের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপজয়ী তারকা রবিন উথাপ্পা মনে করেন, বেশি পণ্ডিতি দেখাতে গিয়েই সর্বনাশ হয়েছে ভারতীয়দের। হুদাকে ফিনিশার বানানোর চেষ্টা হিতে বিপরীত হয়েছে, মত উথাপ্পার। দলে দীনেশ কার্তিকের মতো দারুণ ফর্মে থাকা ফিনিশার থাকা সত্বেও ভারত উপরের দিকের ব্যাটারকে খেলিয়েছে তারা। তিনি বলেন, ‘গত দুই ম্যাচে ভারত যেটা করেছে, তা হলো যাদের দলে রেখেছে তাদের সঠিক পজিশনে খেলায়নি। দীপক হুদা ফিনিশার নয়। সে লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের হয়ে ফিনিশারের ভূমিকায় খেলেনি। অতীতে ভারতের হয়েও সে এ ভূমিকায় কখনো ব্যাট করেনি।’

এশিয়া কাপের আগে ভারতীয় দলের জার্সি গায়ে মাত্র ১৭টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন দীপক হুদা। এমন অনভিজ্ঞ একজনকে এভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষার নামে চাপে ফেলে দেয়াটা ঠিক হয়নি বলে মনে করেন জাতীয় দলের বাইরে থাকা উথাপ্পা। তিনি বলেন, ‘এশিয়া কাপের মতো একটি টুর্নামেন্টের শেষ দিকে এসে আপনি তাকে ৬ ও ৭ নম্বরে নম্বরে নামিয়ে দিলেন। এটা তো তাকে চাপে ফেলে দেয়া। সে নির্দিষ্ট একটা পজিশনে খেলে এবং উঁচু মাপের ব্যাটসম্যান। তাকে তার জায়গায় খেলতে দিন।’

উথাপ্পা আরও মনে করেন, ভারত এমন কোনো সমস্যার সমাধান খুঁজেছে এই টুর্নামেন্টে যে সমস্যা আদতে ছিলই না। তিনি বলেন, ‘আমরা এমন একটা জিনিস জোড়া লাগানোর চেষ্টা করছি, যেটা কখনও ভাঙেনি। আমরা একটু বেশিই ভাবনা-চিন্তা করে ফেলেছি।’