Home > খেলাধুলা > করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের শিরোপা উৎসর্গ করলেন রোনালদো

করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের শিরোপা উৎসর্গ করলেন রোনালদো

শিরোপার সুবাস পেয়ে অনেকটা আচমকাই যেন পথ হারিয়ে ফেলেছিল য়্যুভেন্তাস। বারবার হোঁচট খাওয়ায় বাড়ছিল অপেক্ষা। অবশেষে প্রতীক্ষার শেষ হয়েছে। দুই ম্যাচ হাতে রেখে চ্যাম্পিয়নশিপ নিশ্চিত করার পর লিগ শিরোপাটি ক্লাব সমর্থকদের উৎসর্গ করেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

রোনালদো ও ফেদেরিকো বের্নারদেস্কির গোলে রোববার রাতে সাম্পদোরিয়াকে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে সেরি আর শিরোপা জিতে য়্যুভেন্তাস। ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লিগের মধ্যে প্রথম দল হিসেবে টানা নয় লিগ শিরোপা জয়ের রেকর্ড গড়েছে তুরিনের দলটি।

গত ২০১১-১২ মৌসুম থেকে টানা সিরি ‘আ’ চ্যাম্পিয়ন হয়ে আসছে য়্যুভেন্তাস। সবমিলিয়ে ৩৫তম লিগ শিরোপা জিতল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর বর্তমান দল। এবারের শিরোপাটি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের প্রতি উৎসর্গ করেছেন রোনালদো।

এই মৌসুমে শিরোপা জেতাতে সবচেয়ে বড় অবদান ছিল রোনালদোর। সিরি আ’য় এই মৌসুমে করেছেন ৩১টি গোল। এছাড়া সাম্পদোরিয়াকে হারাতেও প্রথম গোলটি এসেছে কাছ থেকে। ১০ জনের দলে পরিণত হওয়া প্রতিপক্ষকে তারা হারিয়েছে ২-০ গোলে। রোনালদো পেনাল্টি মিস না করলে ব্যবধানটা আরও বাড়তে পারতো।

অথচ এসবই ভেস্তে যেতে বসেছিল একটা সময়। করোনার মহামারিতে লিগ মাঠে গড়াবে কিনা, তা নিয়ে সংশয় ছিল। মৃত্যুপুরীতে পরিণত হওয়া ইতালিতে পরিস্থিতির উন্নতি হওয়াতেই লিগ পুনরায় মাঠে ফিরেছে। তবে ভক্তরা মাঠে উপস্থিত থাকতে পারেননি। করোনাকাল হওয়ায় দর্শকশূন্য স্টেডিয়াম রেখেই জায়ান্টদের খেলতে হয়েছে।

তাই সেই দর্শকদেরই শিরোপা উৎসর্গ করেছেন রোনালদো। ইন্সটাগ্রামে উচ্ছ্বসিত এই তারকা শুরুটা করেছেন এভাবে, ‘কাজটি শেষ করা গেলো। আমরাই এখন ইতালির চ্যাম্পিয়ন। টানা দ্বিতীয়বার শিরোপা জিততে পেরে এবং দুর্দান্ত এই ক্লাবটির ইতিহাস তৈরিতে অবদান রাখতে পেরে খুবই আনন্দিত।’

এর পরেই তিনি বলেছেন, ‘এই শিরোপাটি সব য়্যুভেন্তাস ভক্তদের জন্য। বিশেষ করে যারা হুট করে আসা বৈশ্বিক মহামারিতে আক্রান্ত ও ক্ষতিগ্রস্ত।’ আরও লিখেছেন, ‘এই কাজটা মোটেও সহজ ছিল না। আপনাদের সাহস, মনোভাব ও দৃঢ় সংকল্পের মিলিত শক্তি-ই এই কঠিন চ্যাম্পিয়নশিপে আমাদের প্রয়োজন ছিল। যার জন্য শেষ পর্যন্ত লড়াই করতে পেরেছি। তাই শিরোপাটা আসলে ইতালির সবার। আপনাদের সবার জন্য অনেক ভালোবাসা।’

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*